মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

মদনমোহন মন্দির

শত্রুজিৎপুর মদনমোহন মন্দির

মাগুরা জেলার সদর উপজেলার অন্তর্গত সত্রাজিৎপুর বা শত্রুজিৎপুর ইউনিয়ন মাগুরা জেলার একটি ঐতিহ্যবাহী জনপদ। অত্র ইউনিয়নের বিভিন্ন স্থানে দেখার মতো অনেক কিছু রয়েছে যা স্বচক্ষে না দেখলে অনুমান করা কঠিন। ১২ ভূঁইয়ার অন্যতম ভূষণা অধিপতি মুকুন্দ রায়ের পুত্র রাজা সত্রাজিৎ রায় ১৬৩৬ খ্রীষ্টাব্দে শত্রুজিৎপুর এসে এখানে রাজধানী স্থাপন করে রাজ্য পরিচালনা করতে থাকেন। মোগল শাসক কর্তৃক রাজা সত্রাজিৎ রায় প্রাণদন্ডে দন্ডিত হন। রাজা সত্রাজিৎ রায় এর প্রাণদন্ডের পর তাঁর বংশের রাজ গৌরব ও স্বাধীনতা বিলুপ্ত হয়। রাজা সত্রাজিৎ রায় এর উত্তরাধীকারী কৃষ্ণ প্রসাদ বরাটের গোষ্ঠীপতি রাম হরি গুহ রায়ের কন্যা স্বরসতী দেবীকে বিবাহ করেন এবং উক্ত রামহরির পুত্র রঘুদেব গুহকে তরফ কুজবাড়িয়ার অধীন জয়পুর গ্রাম মহাত্রাণ দান করিয়া তাঁহার বাসস্থান নির্মাণ করিয়া দেন। রঘুদেব প্রায়ই সত্রাজিৎপুরের বাড়ীতে বাস করিতেন। এবং তাঁহারই যত্নে কৃষ্ণ প্রসাদ সত্রাজিৎপুরের মদন মোহন বিগ্রহ প্রতিষ্ঠা করিয়া তাঁহার জন্য একটি কারুকার্য- খচিত সুন্দর মন্দির নির্মাণ করেন, ঐ মন্দিরটি এখনও সত্রাজিৎপুরের ঐতিহ্যের ন্বাক্ষ্য বহন করছে। ১৬৯৮ খ্রীষ্টাব্দে এই মন্দির গঠিত হয়।



যাতায়াত: মাগুরা জেলা শহর হতে মাগুরা-নড়াইল সড়কে প্রায় ১৪ কিলোমিটার পূর্ব দক্ষিণ কোণে শত্রুজিৎপুর গ্রামে নবগঙ্গা নদীর তীরে মদনমোহন মন্দিরটি অবস্থিত। বাস, টেম্পু ও ভ্যানযোগ যাতায়াত করা যায়।

ছবি